• Page Views 46

বাস টার্মিনাল ও ডিপোগুলো মশার আখড়া

গাবতলী বাস টার্মিনালের প্রথম প্রবেশপথেই বড় দুটি গর্ত। সেই গর্তে জমে আছে পানি। পানির ওপর একঝাঁক মশা। 

টার্মিনালের ভেতরে দিগন্ত পরিবহনের কাউন্টারে উঁকি দিতেই চোখে পড়ল, কাউন্টার মাস্টার টিকিট বিক্রি করছেন। মেঝেতে জ্বালানো মশার কয়েল থেকে ধোঁয়া বের হচ্ছে। ঘড়িতে তখন বেলা দুইটা। জানতে চাইলে কাউন্টার মাস্টার মো. লিটন বললেন, ‘মশার যন্ত্রণায় আমরা অতিষ্ঠ। সন্ধ্যা হলে মশা আরও বাড়ে। এখানে মশার আখড়া। একটু ঘুরে দেখলেই টের পাবেন।’

লিটনের কথার সূত্র ধরে কিছুদূর এগিয়ে টার্মিনালের পেছনের অংশে দেখা গেল, এক বিশাল ময়লার ভাগাড় ও হাজারো টায়ারের স্তূপ। পুরো টার্মিনালের আবর্জনা এখানেই ফেলা হচ্ছে।

সরকারের রোগনিয়ন্ত্রণ শাখার জরিপ অনুযায়ী, ঢাকা শহরের এডিস মশার লার্ভা ঝুঁকিপূর্ণ পর্যায়ে থাকা ১২টি স্থানের মধ্যে পাঁচটিই বাস টার্মিনাল ও বাস ডিপো। গতকাল শনিবার গাবতলী বাস টার্মিনালসহ এই পাঁচটি বাস টার্মিনাল ও বাস ডিপো ঘুরে জানা গেছে, গত দুই সপ্তাহে এসব স্থানে কেবল একবার মশা মারার ওষুধ দেওয়া হয়েছে। সেটা ছিল ঈদের আগের দিন। যাত্রার আগে দূরপাল্লার বাসেও মশার ওষুধ দেওয়া হচ্ছে না। টার্মিনাল ও ডিপো এলাকায় যেখানে–সেখানে ফেলে রাখা ময়লা–আবর্জনাও ঠিকমতো পরিষ্কার করা হচ্ছে না। এই তিনটি বাস টার্মিনালে প্রতিদিন প্রায় ৩ হাজার ২০০টি বাসে আড়াই লাখেরও বেশি মানুষ যাতায়াত করে। 

সরকারের রোগনিয়ন্ত্রণ শাখার সর্বশেষ মশা জরিপ অনুযায়ী, বাস টার্মিনালগুলোর ভেতরে-বাইরে মশা জন্মানো ও বংশবিস্তারের উপযুক্ত পরিবেশ রয়েছে। কমলাপুর বিআরটিসি বাস ডিপো ও মহাখালী বাস টার্মিনালের ৮০ শতাংশের বেশি পাত্রে লার্ভা পাওয়া গেছে। গাবতলী বাস টার্মিনাল ও মিরপুর ১২-এর বিআরটিসি বাস ডিপোতে ৬০ থেকে ৮০ শতাংশ পাত্রে এডিসের লার্ভা এবং সায়েদাবাদ বাস টার্মিনালে ২০ থেকে ৬০ শতাংশ পাত্রে লার্ভা পেয়েছেন জরিপকারীরা। গত ৩১ জুলাই থেকে ৪ আগস্ট পর্যন্ত রোগনিয়ন্ত্রণ শাখা ঢাকার ১৪টি এলাকায় এই জরিপ করেছিল। রোগনিয়ন্ত্রণ শাখার সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, জরিপের দুই-তিন দিন পরই তাঁরা ফলাফল দুই সিটি করপোরেশনকে জানিয়েছিলেন।

টার্মিনালগুলো নোংরা
গতকাল সকাল ১০টার দিকে সায়েদাবাদ বাস টার্মিনালে গিয়ে দেখা গেল, টার্মিনালজুড়েই ময়লা। অসংখ্য স্থানে গর্ত হয়ে পানি জমে আছে। টার্মিনালের মাঝখানের ভবনটির চারপাশের নালাগুলোর পানি উপচে সড়কে এসে জমেছে। প্রতিদিন এই টার্মিনালে হাজারখানেক বাস ধোয়ামোছার কাজ করা হয়। সেসব পানিও জমছে। টার্মিনালের পশ্চিম পাশে ও পেছনে বড় বড় গর্তে পানি জমে আছে। আরেকটু এগোতেই চোখে পড়ল নোংরা পানিতে দুটি ডাবের খোসা।

কমলাপুর বিআরটিসি বাস ডিপোর পূর্ব পাশে পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে আটটি বাস। এসব বাসের নিচে ও ভেতরে পানি জমে আছে। দিনের আলোতেও একটি বাসের পেছনের জমে থাকা পানির ওপর একঝাঁক মশা উড়ছিল। ডিপোতে দিনের বেলাতেও মশার উৎপাত অনেক বলে জানান ডিপোর উপব্যবস্থাপক (টেকনিক্যাল) মো. জিলানী। তিনি বলেন, ‘আমরা নিজেরা লোক দিয়ে কোথাও পানি জমে থাকলে তা ঠিক করার চেষ্টা করি। তবে সিটি করপোরেশন এখানে মশার ওষুধ ছিটায় না।’ঢাকায় ঝুঁকিপূর্ণ ১২ স্থানের মধ্যে পাঁচটিই বাস টার্মিনাল ও ডিপো
গত দুই সপ্তাহে এসব স্থানে একবার মশার ওষুধ দেওয়া হয়েছে
যাত্রার আগে দূরপাল্লার বাসে মশার ওষুধ দেওয়া হচ্ছে না


সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল ও কমলাপুর বাস ডিপো ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) অঞ্চল-৫–এর অধীনে। ডিএসসিসির অঞ্চল-৫–এর সহকারী স্বাস্থ্য কর্মকর্তা নিশাত পারভীনের দাবি, ১৫ আগস্টে সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল ও কমলাপুর বাস ডিপোতে দুবার লার্ভা ও মশার ওষুধ ছিটানো হয়েছে। নিয়মিতভাবেই ওষুধ দেওয়া হচ্ছে। অথচ পরিবহনমালিক-শ্রমিকেরা তা বলতে চান না।

যাত্রার আগে স্প্রে করছে না বাসগুলো
সায়েদাবাদ বাস টার্মিনালে কথা হয় ঈগল পরিবহনের চালকের সহকারী মো. রাব্বীর সঙ্গে। যাত্রার আগে বাসে মশার অ্যারোসল স্প্রে করা হয় কি না, জানতে চাইলে বলেন, ‘ঈদে বাস ছাড়ার আগে আমরা মশার স্প্রে করি নাই। মালিক স্প্রে কিনে না দিলে আমরা কইত্তে স্প্রে করুম।’

৫ আগস্ট সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, এবারের ঈদযাত্রায় প্রতিটি বাস ছাড়ার আগে মশা নিধনে অ্যারোসল স্প্রে করতে বাসমালিকদের চিঠি দেওয়া হয়েছে। এর আগে ৪ আগস্ট ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি সিদ্ধান্ত নেয় দূরপাল্লার বাস ছাড়ার আগে অ্যারোসল স্প্রে করার। 

গতকাল সকাল ১০টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত এই প্রতিবেদক সায়েদাবাদ, মহাখালী ও গাবতলী বাস টার্মিনাল থেকে অন্তত ১৪টি বাস দেশের বিভিন্ন গন্তব্যে ছেড়ে যেতে দেখেছেন। যাত্রার আগে এসব বাসের কোনোটিতেই মশার ওষুধ স্প্রে করতে দেখা যায়নি। 

পরিবারের চার সদস্যকে নিয়ে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় এসেছেন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা আনিসুর রহমান। তাঁরা ভোরে রওনা দিয়ে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সায়েদাবাদ নামেন। আনিসুর বলেন, চট্টগ্রাম থেকে যাত্রা শুরুর আগে বাসে কোনো ওষুধ স্প্রে করতে তিনি দেখেননি। 

বেলা একটার দিকে গাবতলী বাস টার্মিনালে কথা হয় রংপুরগামী বাসের যাত্রী মো. আকমলের সঙ্গে। বললেন, ‘আমি দেড় ঘণ্টা ধরে এই টার্মিনালে আছি। এই সময়ে পাঁচটি বাস টার্মিনাল ছেড়ে গেছে। কোনো বাসেই ছাড়ার আগে মশার ওষুধ দেওয়া হয়নি। এত টাকা ভাড়া নেয় বাসগুলো, অথচ ডেঙ্গুর এই সময়ে একটা অ্যারোসল তারা কিনতে পারে না। কেউ সতর্ক না হলে কী আর করার।’

জানতে চাইলে ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্যাহ প্রথম আলোকে বলেন, ‘মালিকেরা তেমনভাবে ওই নির্দেশ মানেনি। তারা না মানলে আর কী করার থাকতে পারে? তবে মাঝেমধ্যে টার্মিনালগুলোতে ওষুধ দিচ্ছি। দুই-একটি বাস কোম্পানি বাসে অ্যারোসল দিচ্ছে। শ্রমিক দিয়ে টার্মিনাল পরিষ্কার করছি। আগে তো কিছুই ছিল না, আমরা এখন যতটুকু পারা যাচ্ছে, করার চেষ্টা করছি।’ 

মহাখালী টার্মিনাল ও মিরপুর বাস ডিপোতে ভিন্ন চিত্র
মহাখালী বাস টার্মিনালে ঢুকতেই দেখা গেল, রাস্তাগুলোতে থাকা অন্তত চারটি ঢাকনাহীন ম্যানহোল। পাঁচটি বাস ধোয়ামোছার কাজ চলছে। কয়েকটি বাসের নিচে স্তূপাকারে আবর্জনা পড়ে আছে। টার্মিনালের পেছনের অংশে বাস মেরামতের দোকানগুলোর সামনে অসংখ্য টায়ার পড়ে আছে। এরই মধ্যে দেখা গেল, ১০–১২ জনকে টার্মিনালের বিভিন্ন জায়গায় জমে থাকা পানি, ময়লা ও নালা পরিষ্কার করতে। এই টার্মিনালে মশার উপদ্রব অনেক বেশি বলে জানান মহাখালী বাস টার্মিনাল সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির কার্যকরী সভাপতি তারেক মাহমুদ।

বেলা আড়াইটার দিকে মিরপুর-১২–এর বিআরটিসি বাস ডিপোতে দেখা গেল, বড় বড় গর্তগুলো বালু দিয়ে ভরাট করা হচ্ছে। পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা ডিপোর বাঁ দিকের নালা থেকে তেল চিটচিটে পুরোনো বর্জ্য ড্রামে করে তুলে বাইরে ফেলছেন। ওই নালার পাশেই বৃষ্টির পরিষ্কার পানি জমে আছে। সে পানি কেউ সরাচ্ছেন না। 

মিরপুর–১২–এর বিআরটিসি বাস ডিপোর প্রধান নিরাপত্তাকর্মী মো. আবুল খায়ের জানান, ১৫ আগস্ট তাঁদের ডিপোতে সিটি করপোরেশনের কর্মীরা এসেছিলেন। কিন্তু কোনো মশার ওষুধ দেওয়া হয়নি। তাঁদের ডিপোতে অসংখ্য টায়ার পড়ে ছিল। তাঁরা ২০ জন শ্রমিক ভাড়া করে প্রায় ৫৫০টি টায়ার সরিয়েছেন এবং ডিপোর নালায় জমে থাকা ময়লা পরিষ্কার করছেন। তিনি জানান, বাস ডিপোতে অসংখ্য জায়গায় পানি জমে আছে। প্রায় তিন ট্রাক বালু দিয়ে এসব ভরাট করা হচ্ছে।

ঢাকার বাস টার্মিনাল ও বাস ডিপোগুলো এডিস মশা জন্মানোর সবচেয়ে ভালো জায়গা বলে জানান জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক কবিরুল বাশার। তিনি বলেন, ‘গাবতলী টার্মিনাল ও কমলাপুর বাস ডিপোতে গেলে অসংখ্য টায়ার পড়ে থাকতে দেখা যায়। এসব টায়ারে এডিস মশা ভালো জন্মায়। প্রতিদিন হাজারো মানুষ টার্মিনালগুলোতে যাতায়াত করে। টার্মিনালগুলোর নোংরা পরিবেশ থাকলে এডিস মশায় আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি থাকে।
সূত্র:প্রথম আলো

Share

টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

Next Story »

থানায় জব্দ গাড়িতে মশার কারখানা

Leave a comment

LifeStyle

  • বাংলাদেশে গণমাধ্যম স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারছে না : ব্রিটিশ হাইকমিশনার

    3 months ago

    বাংলাদশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটারটন ডিকসন বলেছেন, বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিত করতে মিডিয়ার স্বাধীনতা নিশ্চিত হতে হবে। একই সাথে তিনি গত ১৫ বছরে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নতির ...

    Read More
  • এটি এম শামসুজ্জামানের জন্য মেডিকেল বোর্ডের মিটিং

    3 months ago

    বর্তমানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন আছেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান। সেখানে তিনি অধ্যাপক ড. আতিকুর রহমানের তত্ত্বাবধায়নে ভিআইপি ফ্লোরের দ্বিতীয় তলায় ২১২ ...

    Read More
  • ১৫ এপ্রিল প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা

    6 months ago

    ১৫ এপ্রিল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তিন থেকে চার ধাপে সম্পন্ন হবে এ পরীক্ষা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব আকরাম আল ...

    Read More
  • মাইগ্রেনের ব্যথায়

    6 months ago

    মাইগ্রেনের ব্যথায় যখন কেউ কষ্ট পান, তার জন্য এটা অসহনীয় হয়ে যায় অনেক সময়। তীব্র মাথাব্যথা থেকে মুক্তি পেতে, প্রথমেই ঘরোয়া কিছু পদ্ধতি মেনে দেখুন।  যা করতে ...

    Read More
  • মুড সুইং …

    6 months ago

    মৌসুমীর দুই বাচ্চা, মাত্র দেড় বছরের ব্যবধান দু’জনের। এদিকে সাহয্য করারও তেমন কেউ নেই। বাচ্চা-ঘরের কাজ সামলে তার মেজাজ যেন সব সময়ই খারাপ থাকে। কেউ ভালোভাবে কিছু ...

    Read More
  • সুখী হতে ভালোবাসুন

    6 months ago

    গত দু’দিন ধরে অনেকেই ইন্টারনেটে ফিনল্যান্ডের ছবি বের করে দেখছি কেন, দেশটি সব থেকে সুখী, কেন এর মানুষগুলোও সব থেকে সুখী। এসবই যেন মাথায় ঘুরছে সারাক্ষণ।  আসলে ...

    Read More
  • এতো সহজে আইসক্রিম তৈরি!

    6 months ago

    ই গরমে নাম শুনলেই আইসক্রিম খেতে ইচ্ছে করে? আসুন মজার একটি আইসক্রিম ঘরেই তৈরি করি।  যা যা লাগবে: হুইপ ক্রিম ২ কাপ, ২ কাপ ফ্রেশ ক্রিম, চিনি ...

    Read More
  • হরমোনাল ইমব্যালেন্স | কিভাবে আনবেন খাদ্যাভ্যাস ও লাইফস্টাইল-এ চেঞ্জ?

    6 months ago

    আমরা এমন একটা সময়ে বাস করি যেখানে সবাই সৌন্দর্য বা স্বাস্থ্য রক্ষার জন্য নিজের ওজন ও ফিগারের দিকে চড়া নজর রাখি। সেখানে হঠাৎ যদি একদিন দেখি শখের জামাটার হাতা টাইট হয়ে ...

    Read More
  • ১৫০ জনকে চাকরি দেবে ওয়ান ব্যাংক

    6 months ago

    ওয়ান ব্যাংক লিমিটেডে ‘ট্রেইনি সেলস অফিসার’ পদে ১৫০ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ২৫ মার্চ পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন। প্রতিষ্ঠানের নাম: ওয়ান ব্যাংক লিমিটেড পদের নাম: ...

    Read More
  • চাকরি দিচ্ছে মার্কেন্টাইল ব্যাংক

    6 months ago

    মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেডে ‘গ্রুপ লিডার’ পদে জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ০৪ এপ্রিল পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন। প্রতিষ্ঠানের নাম: মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেড পদের নাম: গ্রুপ লিডারশিক্ষাগত ...

    Read More
  • Read

    More