ব্রিটেনে জোর করে বিয়ে দেওয়ার তালিকায় দ্বিতীয় বাংলাদেশি কমিউনিটি

ব্রিটেনে বাঙ্গালি পরিবারগুলোতে ফোর্স ম্যারিজের লাগাম টেনে ধরা যাচ্ছে না। ২০১৭ সালে বাংলাদেশি কমিউনিটিতে ১২৯টি ফোর্সড ম্যারিজের ঘটনা ঘটেছে। ফোর্সড ম্যারিজ ঘটনার তালিকায় বাংলাদেশি কমিউনিটি ২য় অবস্থানে রয়েছে।

মূলত পরিবার বা অন্যকোন পক্ষের ইচ্ছায় জোর করে কাউকে বিয়ে দেওয়ার ঘটনাকে ফোর্সড ম্যারিজ বা জোড় পূর্বক বিয়ে হিসেবে গণ্য করা হয়। যুক্তরাজ্যে ইমিগ্রেন্ট পরিবারগুলোতে এ ধরনের বিয়ের ঘটনা বেশি। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে জোড়পূর্বক বিয়ের ঘটনাগুলো ঘটে যুক্তরাজ্যের বাইরে। অনেক বাংলাদেশি অভিভাবক ধর্মীয় বা সংস্কৃতিগত কারনে বাংলাদেশে নিয়ে বিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন, যেখানে সংশ্লিষ্ট পাত্র বা পাত্রীর পছন্দকে গুরুত্ব দেয়া হয় না। যুক্তরাজ্য জোড় করে বিয়ে দেওয়াকে ক্রিমিনাল অফেন্স বা ফৌজদারি অপরাধ হিসেবে গণ্য করা হয়।

ফরেন অফিস ও হোম অফিস যৌথভাবে গঠন করা একটি ফোর্সড ম্যারিজ ইউনিটের মাধ্যমে জোর করে বিয়ে দেওয়ার চেষ্টা রোধে সহায়তা দেয়। সম্প্রতি তাদের প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে দেখা গেছে, ফোর্সড ম্যারিজ ইউনিট ২০১৭ সালে ১১শ ৯৬টি সম্ভাব্য ফোর্সড ম্যারিজের ঘটনা মোকাবেলা করেছে। এরমধ্যে চার ভাগের ১ ভাগ ঘটনার শিকার ১৮ বছরের কম বয়সী। কেবল মেয়েরা যে এই ঘটনার শিকার হচ্ছেন তা কিন্তু নয়। প্রতি ৫টি ঘটনার একটির শিকার হচ্ছেন ছেলেরা। তবে সামগ্রিকভাবে ২০১৬ সালের চেয়ে ২০১৭ সালের ফোর্সড ম্যারিজের সংখ্যা ১৯ শতাংশ কম হলে বাংলাদেশি কমিউনিটিতে এই সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে।

২০১৬ সালে বাংলাদেশি কমিউনিটিতে ফোর্সড ম্যারিজের সংখ্যা ১২১টি ছিলো কিন্তু ২০১৭ সালে এর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ১২৯টিতে! পরিসংখ্যান অনুযায়ী জোড় পূর্বক বিয়ের ৪৩৯টি ঘটনা নিয়ে শীর্ষে রয়েছে পাকিস্তানি কমিউনিটি, ১২৯টি ঘটনা নিয়ে ২য় অবস্থানে বাংলাদেশি কমিউনিটি। ৯১টি ঘটনা নিয়ে এই তালিকার ৩য় স্থানে রয়েছে সোমালিয়া এবং ৮২টি ঘটনা নিয়ে চতুর্থ অবস্থানে ভারত!

এদিকে ফোর্সড ম্যারিজের এই পরিসংখ্যান যখন বের হয় তখন লিডসের আদালতে কাঠগড়ায় ফোর্সড ম্যারিজের অভিযোগ নিয়ে বিচারের মুখোমুখি এক বাংলাদেশি বাবা-মা। তাদের ১৯ বছরের মেয়ে অভিযোগ করে তাকে জোড় করে বাংলাদেশে নিয়ে বিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছেন তাদের বাবা মা। আইনি কারনে নাম প্রকাশ না করার শর্তে মেয়েটি জানায়, তার চাচাতো ভাইয়ের সাথে জোর করে বিয়ে দেয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন তার বাবা-মা। এমনকি ওই ছেলেটির একটি সন্তানও রয়েছে।

মেয়েটির রেকর্ডকৃত বক্তব্য লিডস ক্রাউন কোর্টে বিচারকদের শুনানো হয়। এতে জানা যায়, ২০১৬ সালের জুলাই মাসে বাংলাদেশে ঈদ উদযাপনের কথা বলে তাকে নিয়ে যাওয়া হয়। দেশে যাওয়ার পরদিনই ৩ জুলাই বাবা জানায়, তাকে দেশে চাচাতো ভাইকে বিয়ে করতে হবে। পাত্র হিসাবে সে খুবই যোগ্য। সে যদি ঐ ছেলেকে বিয়ে করে তাহলে সে রানীর মতো জীবন যাপন করবে আর বিয়ে না করলে পুরো পরিবারের জন্য বিষয়টি কলঙ্কের হবে। বিয়ের এই অব্যাহত চাপে সে আত্মহত্যার পরিকল্পনা করেছিলো।

মেয়েটি তার বক্তব্যে আরো জানায়, তারা বাবা তাকে বলেন তোমাকে ১৮ বছর লালন পালন করেছি, এখন যদি কথা না শুনো তাহলে ১৮ সেকেন্ডও লাগবে না তোমাকে কেটে টুকরো টুকরো করতে। একপর্যায়ে মৌখিক নির্যাতন শারিরীক নির্যাতনেও রূপ নেয়। একদিন মেয়েটির বাবা তার মাথায় আঘাত করেন। মেয়েটি ভয়ে ঘুম ও খাওয়া দাওয়া ছেড়ে দেয়। অবশেষে ব্রিটেনে থাকা বোন ও বন্ধুর সহযোগিতায় বাংলাদেশস্থ ব্রিটিশ হাই কমিশনের হস্তক্ষেপে বিয়ের আগের দিন মেয়েটিকে উদ্ধার করা হয়।

নির্যাতিতা মেয়েটি তার বক্তব্যে বলে, সে চায় তার বাবার উপযুক্ত শাস্তি হোক। সে কখনোই তার বাবার সাথে কথা বলতে চায় না।

মেয়েটির বাবা মায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ হচ্ছে মেয়েকে জোড় পূর্বক বিয়ে দিতে চেয়ে সহিংস আচরণ ও শারিরীক নির্যাতন এবং হুমকি প্রদান। এখনও এই মামলার শুনানি চলছে।

উল্লেখ্য, গত দশকে বাংলাদেশি কমিউনিটিতে ফোর্সড ম্যারিজের সংখ্যা মারাত্নক আকার ধারণ করলে বাংলাদেশস্থ ব্রিটিশ হাই কমিশন, ব্রিটিশ হোম অফিস, ব্রিটেনের স্থানীয় সরকার এ ব্যাপারে কঠোর অবস্থান নেয় ও নানা ধরনের সচেতনতামূলক কার্যক্রম করে এর সংখ্যা কমিয়ে আনে। তবে সম্প্রতি আবারো ফোর্সড ম্যারিজের সংখ্যা বাড়ছে।

সূত্র:বিডি প্রতিদিন

Share

বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব অব মালয়েশিয়ার ইফতার মাহফিল

Next Story »

নিউইয়র্কে আওয়ামী লীগের ইফতার মাহফিল

Leave a comment

LifeStyle

  • শীতকালীন বিষণ্নতা দূর করার সাত উপায়

    8 mins ago

    এই শীতে আপনি যদি অলস বা বিষণ্ণ বোধ করেন, মনে রাখবেন এটি আসলে ঋতু পরিবর্তনের কারণে যা সিজোনাল অ্যাফেক্টিভ ডিসওর্ডার (এসএডি) নামে পরিচিত। এটি এমন একটি ডিপ্রেশন ...

    Read More
  • সবুজে সুস্থ চোখ

    2 hours ago

    দৃষ্টিশক্তি সংক্রান্ত সমস্যায় আজকাল কমবেশি অনেকেই ভোগেন। বিশেষ করে সারাদিন কম্পিউটার কিংবা স্মার্টফোনের দিকে তাকিয়ে থাকতে থাকতে চোখের দফারফা হয়ে যায়। সারাদিন অফিস করেও খানিকটা সচেতন হতে ...

    Read More
  • ত্বক, চুল ও চোখের পুষ্টি জোগায় পেয়ারা

    2 hours ago

    পেয়ারা শুধু সুস্বাদু একটি ফলই নয়, পুষ্টিগুণেও ভরপুর এটি। সবুজ এই ফলটিতে আঁশ, পানি, কার্বহাইড্রেট, প্রোটিন, ভিটামিন এ, ভিটামিন কে, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ফসফরাস, ক্যালসিয়াম ইত্যাদি খাদ্য পুষ্টি ...

    Read More
  • ইলিশ বল তৈরির রেসিপি

    2 hours ago

    ইলিশ মাছ দিয়ে তৈরি করা যায় অনেকরকম মজার খাবার। তেমনই একটি পদ হলো ইলিশ বল। সাধারণত আমরা যেভাবে ফিশবল তৈরি করি এটি অনেকটা সেভাবেই করতে হয়। চলুন ...

    Read More
  • যদি ওজন কমাতে চান

    6 hours ago

    একটি বছর শেষ হয়ে এসেছে, নতুন বছরের শুরু থেকেই ‍অনেকেরই লক্ষ্য হবে, যেভাবেই হোক বাড়তি ওজন কমানো। আর এই বাড়তি ওজন কমানোর জন্য কত কিছুই না করি। কিন্তু ...

    Read More
  • রেসিপি: পোড়া বেগুনের পাকোড়া

    3 days ago

    উপকরণ বেগুন- ১টিতেল- পরিমাণ মতোচালের গুঁড়া- ৩ টেবিল চামচবেসন- আধা কাপধনে গুঁড়া- আধা চা চামচলবণ- স্বাদ মতোহলুদের গুঁড়া- আধা চা চামচধনেপাতা কুচি- ২ টেবিল চামচপেঁয়াজ কুচি- দেড় ...

    Read More
  • রূপচর্চায় নিম ব্যবহার করবেন কেন?

    3 days ago

    যুগ যুগ ধরে ঔষধিগুণ সম্পন্ন নিম ব্যবহৃত হয়ে আসছে বিভিন্নভাবে। স্বাস্থ্যরক্ষায় যেমন এটি অনন্য, তেমনি রূপচর্চায়ও নিমের জুড়ি মেলা ভার। এটি ব্রণের সমস্যা যেমন দূর করে, তেমনি ...

    Read More
  • রঙিন চুলে মৎস্যকন্যা!

    3 days ago

    চুল রঙিন করতে চাইছেন? গতানুগতিক রংগুলোকে পাশ কাটিয়ে বেশকিছু গাঢ় ও উজ্জ্বল রং আজকাল জায়গা করে নিচ্ছে ফ্যাশনপ্রেমীদের চুলে। একসময় যেসব রঙে চুল রাঙানোর কথা কেউ চিন্তাও ...

    Read More
  • ডায়েটের ৫ ভুল

    3 days ago

    অনেক সময় দেখা যায়, ডায়েট করেও কাঙ্ক্ষিত ফল পাচ্ছেন না অনেকে। কারণ, ডায়েটের সময় আমরা এমন কিছু ভুল করি যেগুলোর জন্য মেদ কমাতো দূরের কথা, উল্টো আমাদের ...

    Read More
  • সকালে কাঁচা ছোলা খাওয়ার উপকারিতা

    4 days ago

    কাঁচা ছোলার গুণ সম্পর্কে আমরা সবাই কমবেশি জানি। ছোলায় বিভিন্ন প্রকার ভিটামিন, খনিজ লবণ, ম্যাগনেশিয়াম ও ফসফরাস রয়েছে। উচ্চমাত্রার প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার ছোলা। কাঁচা, সেদ্ধ বা তরকারি রান্না ...

    Read More
  • Read

    More