• Page Views 102

রাজনৈতিক দল-জোট: ঐক্য নেই কোথাও

ভোটের আগে জোটের রাজনীতিতে নতুন মাত্রা ছড়ালেও নির্বাচন শেষ হওয়ার পরই শুরু হয়েছে অস্থিরতা। ঐক্যকে প্রাধান্য দিয়ে বিভিন্ন সময়ে নানা নামে জোট হলেও এখন সেই জোটেই দেখা দিয়েছে অনৈক্য।

শুধু জোট নয়, শরিক দলগুলোর অভ্যন্তরেও নেই ঐক্য।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করেন, চাওয়া-পাওয়াকে কেন্দ্র করে এসব জোট-মহাজোট গড়ে উঠেছে। তাদের মধ্যে সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য বা আদর্শগত কোনো ঐক্য নেই।

যখন নিজেদের স্বার্থ মিলাতে পারে না, তখনই এসব জোটে ভাঙনের সুর বাজে। অনেক সময় ভেঙেও যায়। যার ছোঁয়া লাগে দলগুলোতেও।

বিশ্লেষকদের আরও অভিমত, নির্বাচনের আগে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল অনেক প্রত্যাশা নিয়ে জোটে যোগ দিয়েছিল। কিন্তু নির্বাচনের পর অনেকের আশা ভঙ্গ হয়েছে। এখন তারা নতুন কোনো আশায় ভিন্নপথ খোঁজার চেষ্টা করছে।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটের শরিকরা ভালো নেই। জোটের শরিকদের মধ্যে ক্ষোভের পাশাপাশি নিজ দলে আধিপত্য, দলীয় ফোরাম উপেক্ষা করে সংরক্ষিত আসনে এমপি মনোনয়ন নিয়ে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে।

একই অবস্থা বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টেও। অনৈক্যের কারণে ইতিমধ্যে জোট ও ফ্রন্ট ছেড়েছে দুটি দল।

জোটের অন্যতম শরিক এলডিপি, জামায়াতে ইসলামী, জাগপাসহ আরও কয়েকটি দলের ভেতরে শুরু হয়েছে অনৈক্য। ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম শরিক গণফোরামের ভেতরেও রয়েছে অস্থিরতা। এ দুই জোটের পাশাপাশি বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বাধীন যুক্তফ্রন্টেও শুরু হয়েছে অস্থিরতা। নানা ইস্যুতে এ জোটেও এখন অনৈক্যের সুর।

জানতে চাইলে সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজন সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার বলেন, বাংলাদেশের রাজনৈতিক দলগুলো জাতীয় স্বার্থের চেয়ে দলীয় স্বার্থকেই প্রাধান্য দিয়ে থাকে।

তাদের কাছে নীতি-আদর্শের কোনো মূল্য নেই। একটা দলের মূল উদ্দেশ্য থাকে শৃঙ্খলা, নীতি-নৈতিকতা, কতগুলো আদর্শ, কতগুলো কর্মসূচি।

এখনকার রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে এগুলো কিছুই নেই। এগুলো রাজনৈতিক দল নয়, এগুলো হচ্ছে রাজনৈতিক সিন্ডিকেট। তিনি বলেন, নিজের চাওয়া-পাওয়ার হিসাব করে একেকটি জোট গঠন করা হয়। কিন্তু যখন দেখে- স্বার্থ হাসিল হচ্ছে না বা সম্ভব নয়, তখন কেটে পড়ে।

২০ দল ও ঐক্যফ্রন্টে অনৈক্য : চাওয়া-পাওয়ার হিসাব কষতে গিয়ে অস্থিরতা বিরাজ করছে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটে। জোটটির ঐক্য অনেকটা কাগজেকলমেই সীমাবদ্ধ। বাস্তব চিত্র ভিন্ন।

বিএনপির রাজনৈতিক অসঙ্গতি ও সিদ্ধান্তহীনতার কারণে দলটির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট থেকে বেরিয়ে গেছে আন্দালিভ রহমান পার্থের নেতৃত্বাধীন বিজেপি।

আরও কয়েকটি দল জোট ছাড়তে পারে বলে গুঞ্জন রয়েছে। জোটের আরেক শরিক এলডিপি সক্রিয় হয়েছে নতুন রাজনৈতিক উদ্যোগ নিয়ে। কর্নেল (অব.) অলি আহমদের নেতৃত্বে গড়ে ওঠা জাতীয় মুক্তি মঞ্চকে সন্দেহের চোখে দেখছেন বিএনপির নীতিনির্ধারকরা।

এদিকে জোটের ভেতরের অনৈক্য ছড়িয়ে পড়েছে শরিক দলগুলোর অভ্যন্তরেও। সংসদে যাওয়া, উপনির্বাচনে অংশ নেয়াসহ বেশকিছু ইস্যুতে বিএনপি নেতাদের মধ্যে সৃষ্টি হয়েছে অনৈক্য। এ মাত্রাটা এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, স্থায়ী কমিটির বৈঠকেই নেতারা বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন।

এছাড়া জোটের অন্যতম শরিক এলডিপিতেও বাজছে অনৈক্যের সুর। জাতীয় মুক্তি মঞ্চ গঠনকে কেন্দ্র করে এ বিভাজন সৃষ্টি হয়। জোটের ভেতর থেকে আরেকটি মঞ্চ গঠনকে ভালোভাবে নেননি দলটির অনেক নেতা। কর্নেল (অব.) অলিকে এ ব্যাপারে সতর্ক করা হলেও দলের সিনিয়র নেতাদের কোনো কথাই তিনি কর্ণপাত করেননি। অবশেষে এলডিপি থেকে পদত্যাগ করেন তিনজন প্রেসিডিয়াম সদস্য।

২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক জামায়াতের ভেতরেও সৃষ্টি হয়েছে অনৈক্য। সংস্কার ইস্যুতে দলটিতে অস্থিরতা চরমে। শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে বহিষ্কারের ঘটনাও ঘটছে। কেউ নতুন করে দল করার প্রচেষ্টা চালাচ্ছে।

দলটির কেন্দ্রীয় মজলিশে শূরার সদস্য মজিবুর রহমান মঞ্জুকে বহিষ্কার করা হয়েছে। সংস্কারপন্থীদের নিয়ে নতুন রাজনৈতিক দল গঠনের চেষ্টা চালাচ্ছেন মঞ্জু।

এর অংশ হিসেবে মঞ্জু জন-আকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশ নামক নতুন একটি মঞ্চের ঘোষণা দেন। জামায়াতের সিনিয়র অনেক নেতা এ মঞ্চে যোগ দিতে পারেন বলে গুঞ্জন রয়েছে।

এদিকে অলির নতুন রাজনৈতিক তৎপরতার ধাক্কা লেগেছে জোটের অন্য শরিকদের মধ্যেও। অলির নতুন মঞ্চে যাওয়া না যাওয়া নিয়ে শরিক কয়েকটি দলের অভ্যন্তরে সৃষ্টি হয়েছে অনৈক্য।

জাগপার সভাপতি ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান অলির নতুন মঞ্চে যাওয়ার বিরোধিতা করছেন মহাসচিব খন্দকার লুৎফর রহমানসহ কয়েক নেতা।

বিএনপিকে বাদ দিয়ে তারা অলির সঙ্গে হাত মেলালে প্রয়োজনে দল ছাড়ার হুমকি দিয়েছেন। বর্তমানে দলটি কার্যত দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে কর্মসূচি পালন করছে।

নির্বাচনের আগে ঢাকঢোল পিটিয়ে ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে গঠন করা হয় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। কিন্ত নির্বাচনের কয়েক মাস যেতে না যেতেই ঐক্যফ্রন্টে সৃষ্টি হয় অনৈক্য।

কয়েক দফা আলটিমেটাম দিয়ে অবশেষে ফ্রন্ট থেকে বেরিয়ে যায় বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর নেতৃত্বাধীন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ। এ নিয়ে ঐক্যফ্রন্টের ভেতরে বিরাজ করছে অস্থিরতা।

কাদের সিদ্দিকীকে ঐক্যফ্রন্টে ফিরিয়ে আনতে ড. কামাল হোসেন এমনকি বিএনপির কোনো তৎপরতা লক্ষ করা যায়নি। ফ্রন্টের অন্যতম শরিক জেএসডি ও নাগরিক ঐক্য বিষয়টি ভালোভাবে নেয়নি।

এদিকে জাতীয় নির্বাচনের পর নির্বাচিতদের শপথকে কেন্দ্র করে ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম শরিক গণফোরামের মধ্যে সৃষ্টি হয় অনৈক্য। এ কারণে গণফোরামের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মোহসীন মন্টু দলীয় পদ হারিয়েছেন বলেও গুঞ্জন রয়েছে। ক্ষোভে অনেকেই দলীয় কার্যক্রমে নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েছেন।

জানতে চাইলে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর যুগান্তরকে বলেন, ২০ দলীয় জোটে কোনো টানাপোড়েন বা অনৈক্য নেই। সরকার জোট ভাঙার চেষ্টা চালাচ্ছে। কিন্তু সরকারের সেই ষড়যন্ত্র সফল হয়নি।

তবে সরকারের লোভে পড়ে কয়েকজন জোট ছাড়লেও তাতে কোনো ক্ষতি হয়নি। তিনি বলেন, জোটের শরিকদের সঙ্গে নিয়মিত তাদের যোগাযোগ রয়েছে। আগের চেয়ে জোট আরও বেশি শক্তিশালী ও ঐক্যবদ্ধ আছে।

ভালো নেই ১৪ দলের শরিকরা : ভালো নেই আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটের শরিকরা। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জোটবদ্ধ বিজয় এলেও সরকারে নেই তারা।

এ নিয়ে ঘরে-বাইরে উত্তপ্ত কথাও বলছেন শরিক দলের নেতারা। এদিকে নিজ দলের আধিপত্য, দলীয় ফোরাম উপেক্ষা করে সংরক্ষিত আসনে এমপি মনোনয়ন নিয়ে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে শরিকদের মধ্যে। অনেকে কিছুই না পাওয়ার হতাশায় জোটগত কর্মসূচিতে নিষ্ক্রিয়। সব মিলে জোটের হিসাবে গরমিল দেখছেন আওয়ামী লীগের দীর্ঘদিনের রাজপথের মিত্ররা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ১৪ দলের মুখপাত্র ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ নাসিম যুগান্তরকে বলেন, ১৪ দল যে লক্ষ্যে গঠিত হয়েছে, তা অটুট রয়েছে। জোটের শরিকরা সরকারের সঙ্গেই আছে। এ নিয়ে কোনো মতবিরোধ নেই। জোটের সব দল ঐক্যবদ্ধ থেকে সব কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছে।

তিনি বলেন, শরিক দলগুলোর অভ্যন্তরীণ সমস্যা থাকতেই পারে, তবে সেটা তাদের নিজস্ব ব্যাপার। এ বিষয়ে আমি কোনো কথা বলতে চাই না।

একাদশ জাতীয় নির্বাচনের পর ৭ জানুয়ারি গঠিত নতুন সরকারের মন্ত্রিসভায় ১৪ দলীয় জোটের শরিকদের কাউকে মন্ত্রিসভায় স্থান দেয়া হয়নি।

আগের মন্ত্রিসভায় থাকা নেতারাও নতুন মন্ত্রিসভা থেকে বাদ পড়ে যান, যা ১৪ দল শরিকদের বিস্মিত ও হতাশ করে। এর আগে ২০০৮ ও ২০১৪ সালের নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে সরকার গঠনকালে শরিক দলের একাধিক নেতাকে মন্ত্রী করা হলেও এবার মন্ত্রিসভার বাইরে রাখায় তাদের অনেকে নতুন সরকারকে ‘১৪ দলের নয়, আওয়ামী লীগ সরকার’ হিসেবে দেখছেন।

তাদের অভিযোগ, এই মন্ত্রিসভা গঠনের আগে-পরে তাদের সঙ্গে কোনো ধরনের আলোচনাই করা হয়নি। এ নিয়ে জোটের শরিকরা ক্ষুব্ধ। আগের মতো জোটের ভেতরে ঐক্য ততটা অটুট নেই।

১৪ দলীয় জোটের শীর্ষ দুই নেতা প্রায় একই সুরে বলেন, জোটের প্রয়োজনীয়তা ফুরিয়ে যায়নি। নির্বাচনে আসন কমানোর পাশাপাশি মন্ত্রিসভা থেকে বাদ- এটা আমাদের জন্য দুঃখজনক ও হতাশার। আমরা এখনও আশা করি, প্রধানমন্ত্রী কিছু করবেন।

এদিকে শরিক দলগুলোর অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বও মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে। অনেক দলে শীর্ষ নেতাদের আধিপত্যকে কেন্দ্র করে বিভক্তি দেখা দিয়েছে। ১৪ দলের অন্যতম শরিক বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টিতে চলছে অস্থিরতা।

দলীয় ফোরামে আলোচনা ছাড়াই একমাত্র মহিলা আসনে পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন তার স্ত্রীকে মনোনয়ন দেন। বিষয়টি দলের কেউই ভালো চোখে নেয়নি।

প্রকাশ্যে প্রতিবাদ করতেও দেখা গেছে অনেককে। জোটের শীর্ষ নেতাদের এ নিয়ে অভিযোগ করেছেন ওয়ার্কার্স পার্টির সিনিয়র নেতারা। এত কিছুর পরও রাশেদ খান মেনন তার সিদ্ধান্তে অটল থাকায় দলের নেতাকর্মীরা এখন নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েছেন। দলীয় কার্যক্রমেও নেই কোনো উদ্যোগ।

জানতে চাইলে দশম সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি ও ওয়ার্কার্স পার্টির পলিট ব্যুরো সদস্য হাজেরা সুলতানা যুগান্তরকে বলেন, সংরক্ষিত আসনে মনোনয়নপ্রত্যাশী দলে অনেকেই ছিলেন। সেখানে দলের সভাপতি তার স্ত্রীকে মনোনয়ন দিয়েছেন। এ নিয়ে ক্ষোভ থাকতেই পারে। তবে দল দলের মতোই চলছে।

১৪ দলীয় জোটে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদের কমিটি এখন দুটি। দলের মধ্যে আধিপত্যকে কেন্দ্র করে ২০১৬ সালে এই বিভক্ত হয়।

একটি অংশের সভাপতি হাসানুল হক ইনু ও সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার। অপর অংশের সভাপতি শরীফ নুরুল আম্বিয়া ও সাধারণ সম্পাদক মাঈনুদ্দিন খান বাদল। ক্ষমতার বাইরে থাকার কারণে জোটের অন্য জোট শরিকদের অভ্যন্তরীণ অবস্থাও বেগতিক। নেতৃত্ব নিয়ে চলছে নীরব দ্বন্দ্ব।

বি চৌধুরীর যুক্তফ্রন্ট : একাদশ নির্বাচনের আগে নামসর্বস্ব আটটি দল নিয়ে যুক্তফ্রন্ট গঠন করেন বিকল্প ধারার প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী।

সংসদ নির্বাচনের পর নানা ইস্যুতে যুক্তফ্রন্টে অস্থিরতা বিরাজ করছে। জোটের প্রধান দল বিকল্প ধারার সার্বিক কর্মকাণ্ড নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন শরিকরা। সম্প্রতি জোটের এক যৌথ সভায় এ নিয়ে কথাও বলেন তারা।

জোটের ভূমিকা স্পষ্ট এবং রাজনীতিতে সক্রিয় করা না হলে বাংলাদেশ ন্যাপ ও কয়েকটি দল যুক্তফ্রন্ট ছাড়তে পারে বলেও গুঞ্জন রয়েছে।

জানতে চাইলে যুক্তফ্রন্টের অন্যতম শরিক বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপের মহাসচিব এম গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া যুগান্তরকে বলেন, আমাদের রাজনীতি হচ্ছে গণতন্ত্র ও জাতীয়তাবাদ প্রতিষ্ঠা।

শুধু সরকারের তোষামোদ করার রাজনীতি না। রাজনৈতিক অঙ্গনে আমাদের অবস্থানটা কোথায়, এটা অবশ্যই পরিষ্কার করতে হবে। নইলে আমাদের নতুন করে ভাবতে হবে। আমরা পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করব।
সূত্র: দৈনিক যুগান্তর

Share

বামদের ঢিলেঢালা হরতাল

Next Story »

ভারত সার্টিফিকেট দিলেও সরকার বৈধতা পাবে না

Leave a comment

LifeStyle

  • বাংলাদেশে গণমাধ্যম স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারছে না : ব্রিটিশ হাইকমিশনার

    5 months ago

    বাংলাদশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটারটন ডিকসন বলেছেন, বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিত করতে মিডিয়ার স্বাধীনতা নিশ্চিত হতে হবে। একই সাথে তিনি গত ১৫ বছরে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নতির ...

    Read More
  • এটি এম শামসুজ্জামানের জন্য মেডিকেল বোর্ডের মিটিং

    5 months ago

    বর্তমানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন আছেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান। সেখানে তিনি অধ্যাপক ড. আতিকুর রহমানের তত্ত্বাবধায়নে ভিআইপি ফ্লোরের দ্বিতীয় তলায় ২১২ ...

    Read More
  • ১৫ এপ্রিল প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা

    8 months ago

    ১৫ এপ্রিল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তিন থেকে চার ধাপে সম্পন্ন হবে এ পরীক্ষা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব আকরাম আল ...

    Read More
  • মাইগ্রেনের ব্যথায়

    8 months ago

    মাইগ্রেনের ব্যথায় যখন কেউ কষ্ট পান, তার জন্য এটা অসহনীয় হয়ে যায় অনেক সময়। তীব্র মাথাব্যথা থেকে মুক্তি পেতে, প্রথমেই ঘরোয়া কিছু পদ্ধতি মেনে দেখুন।  যা করতে ...

    Read More
  • মুড সুইং …

    8 months ago

    মৌসুমীর দুই বাচ্চা, মাত্র দেড় বছরের ব্যবধান দু’জনের। এদিকে সাহয্য করারও তেমন কেউ নেই। বাচ্চা-ঘরের কাজ সামলে তার মেজাজ যেন সব সময়ই খারাপ থাকে। কেউ ভালোভাবে কিছু ...

    Read More
  • সুখী হতে ভালোবাসুন

    8 months ago

    গত দু’দিন ধরে অনেকেই ইন্টারনেটে ফিনল্যান্ডের ছবি বের করে দেখছি কেন, দেশটি সব থেকে সুখী, কেন এর মানুষগুলোও সব থেকে সুখী। এসবই যেন মাথায় ঘুরছে সারাক্ষণ।  আসলে ...

    Read More
  • এতো সহজে আইসক্রিম তৈরি!

    8 months ago

    ই গরমে নাম শুনলেই আইসক্রিম খেতে ইচ্ছে করে? আসুন মজার একটি আইসক্রিম ঘরেই তৈরি করি।  যা যা লাগবে: হুইপ ক্রিম ২ কাপ, ২ কাপ ফ্রেশ ক্রিম, চিনি ...

    Read More
  • হরমোনাল ইমব্যালেন্স | কিভাবে আনবেন খাদ্যাভ্যাস ও লাইফস্টাইল-এ চেঞ্জ?

    8 months ago

    আমরা এমন একটা সময়ে বাস করি যেখানে সবাই সৌন্দর্য বা স্বাস্থ্য রক্ষার জন্য নিজের ওজন ও ফিগারের দিকে চড়া নজর রাখি। সেখানে হঠাৎ যদি একদিন দেখি শখের জামাটার হাতা টাইট হয়ে ...

    Read More
  • ১৫০ জনকে চাকরি দেবে ওয়ান ব্যাংক

    8 months ago

    ওয়ান ব্যাংক লিমিটেডে ‘ট্রেইনি সেলস অফিসার’ পদে ১৫০ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ২৫ মার্চ পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন। প্রতিষ্ঠানের নাম: ওয়ান ব্যাংক লিমিটেড পদের নাম: ...

    Read More
  • চাকরি দিচ্ছে মার্কেন্টাইল ব্যাংক

    8 months ago

    মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেডে ‘গ্রুপ লিডার’ পদে জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ০৪ এপ্রিল পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন। প্রতিষ্ঠানের নাম: মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেড পদের নাম: গ্রুপ লিডারশিক্ষাগত ...

    Read More
  • Read

    More